আমি শুধু অনেক দিন নিরব হয়ে তোমার প্রতীক্ষা করেছিলাম

অনুমতি দাও, তোমার দৃষ্টিসীমা একবার ঘুরে আসি;
শ্রাবণের শীতল ধারার ধারনা দেবো
দ্রাক্ষার নিপুন উল্লাসের মাদকতায়; শুধু একবার বন্দী করে দ্যাখো
তোমার ওষ্ঠের উদ্যানে কেমন ফোঁটাই রক্তজবা। নিমজ্জিত
আকাঙ্খার শ্যাওলা ধরা স্তনে এনে দেবো জ্যোতির্ময় জ্যোস্না
কত প্রজন্ম ধরে তাকিয়ে রয়েছি- অনুমতি দাও,
ঘুরে আসি নিবিড় বনভূমি। শ্যামলীমায় আকন্ঠ
অবগাহনে হয়ে উঠবো পবিত্র আদিম আর্য পুরুষের বিশুদ্ধ অনুবাদ।
নাভীমুলের অমাবশ্যায় জ্বলে উঠবে কামার্ত জোনাক আলো

ইশারায় ছড়াবো উঠোনে জলজ-পদ্যর ডালি
কত সহস্র বর্ষার বৃষ্টি হয়ে ঝরছি তোমার বিকেলের বিমুগ্ধ দৃষ্টির কাছে
কেবল অনুমতি পাইনি বলে প্লাবিত করিনি তোমার…
২.
আমি শুধু অনেক দিন নিরব হয়ে তোমার প্রতীক্ষা করেছিলাম;
আমি শুধু কবিতার কাছে তোমাকেই প্রার্থনা করেছিলাম; অনুমতি দাও
কবিতা, অক্ষত কুমারীর চোখের জলে সন্তরণ পটু আমার স্বত্বাকে
আরও একবার বোশেখের রোদে জাগিয়ে তুলি; চৈত্রের হাহাকার নিয়ে
অ্যাতকাল আমার বেঁচে থাকা; কেবল অনুমতি দাও, এই তীব্র
দাবদাহ ভুলে যাওয়া আষাঢ়ে ভাসাই তোমার ত্রিমাত্রিক বিষন্নতা

4 Comments Add yours

  1. কুচ্ছিত হাঁসের ছানা 99 mcc says:

    কবিতা গুলোর একটাও আমার লেখা না। সংগৃহীত।

    Like

  2. Zihad says:

    tui j kobita poros tai to jantam na!!

    Like

  3. প্রণব আচার্য্য says:

    এই কবিতাগুলো আমার। অনেকদিন আগে সামুতে দিছিলাম।।

    প্রণব আচার্য্য

    Like

    1. কুচ্ছিত হাঁসের ছানা says:

      ji vai, এই কবিতা গুলো আপনার। আমি শুধু ভাললাগা পোস্ট গুলোকে এখানে এনে পেস্ট করেছি মাত্র।

      Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s